জেলের প্রথম দিন রিয়াকে যা খেতে দেয়া হলো

বিনোদন

বলিউডের প্রতিভাবান অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের রহস্যজনক মৃত্যুর সঙ্গে মাদকের সংশ্লিষটার অভিযোগে রিয়া চক্রবর্তীকে মঙ্গলবার গ্রেফতার করে ভারতের নারকোটিক সেন্ট্রাল ব্যুরো( এনসিবি)। আদালত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিলে তাঁকে এ দিন রাতে হেডকোয়ার্টারে রাখা হয়। বুধবার তাঁকে মুম্বইয়ের বাইকুলা জেলে পাঠানো হয় ।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ এনসিবি গোয়েন্দারা কড়া পুলিশি ঘেরাটোপে বাইকুলা জেলে নিয়ে যান রিয়া চক্রবর্তীকে। বাইকুলা জেলে এই মুহূর্তে ২৫০জন রয়েছেন। জেল সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথমে রিয়াকে জেনারেল ব্যারাকে রাখা হবে। কেউ জেলে আসার পরে প্রথমে তাদের এই জেনারেল ব্যারাকে রাখা হয়। শারীরিক নানা পরীক্ষার পরে কমন ব্যারাকগুলিতে পাঠানো হয়।

এক একটি ব্যারাকে ৪০-৫০ জন করে কয়েদি থাকে। মোট ৬ টি ব্যারাক রয়েছে। তারই কোনও একটিতে রাখা হবে রিয়া চক্রবর্তীকে। ইতিমধ্যেই রিয়া চক্রবর্তীর শারীরিক পরীক্ষা হয়ে গিয়েছে। তেমন কোনও অসুস্থতা ধরা পড়েনি। ফলে, রাতের মধ্যেই হয়তো তাকে কমন ব্যারাকে পাঠানো হবে।

রিয়ার জন্য যে জামাকাপড় আনা হয়েছিল, তার সব তাকে দেওয়া হয়নি। খুব প্রয়োজনীয় কিছু জিনিস পলিথিনের ব্যাগে করে রাখতে দেওয়া হয়েছে। বিকেলেই তাকে ব্যারাকে পাঠানো হয়।

ব্যারাক বলতে বিশাল হলঘর। যেখানে কয়েদিদের দেওয়া হয় একটি করে কম্বল, একটি বালিশ, একটি সাদা চাদর এবং একটি লেপ। বিছানার মধ্যেই রাখতে হয় প্রয়োজনীয় জিনিসের প্লাস্টিক। রিয়াকে এদিন জেলেই দুপুরের খাবার দেওয়া হয়। ছিল ভাত, ২টো রুটি, ডাল এবং সবজি। জেলে ক্যান্টিন রয়েছে। সেখানে কয়েদিরা নিজেদের যৎসামান্য টাকায় বিস্কুট বয়া শুকনো খাবার কিনে খেতে পারেন।