‘মানবিক কারণে’ ভারতকে ফেনী নদীর পানি দিচ্ছে বাংলাদেশ

জাতীয়

বাংলাদেশ সম্পূর্ণ মানবিক কারণে ভারতকে ফেনী নদীর পানি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক।
তিস্তা নদীর পানি বণ্টন ইস্যু নয়াদিল্লি দীর্ঘদিন ঝুলিয়ে রাখলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে ফেনী নদীর পানি বণ্টন নিয়ে চুক্তি সই হয়।

শনিবার স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী, ফেনী নদী থেকে ১.৮৬ কিউসেক পানি ত্রিপুরার সাব্রুম শহরে সরবরাহ করা হবে।
পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বিবিসিকে বলেন, ‘সম্পূর্ণ মানবিক কারণেই প্রধানমন্ত্রী হাসিনা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

ভারতের বিতর্কিত জাতীয় নাগরিক তালিকা বা এনআরসি নিয়ে ঘটনাপ্রবাহ কোন দিকে গড়ায়, সে দিকেও বাংলাদেশ সতর্ক নজর রাখছে বলে তিনি জানান।
এবারও তিস্তা নিয়ে কোনো চুক্তি না হলেও আরও সাতটি অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনের জন্য দুই দেশ একটি ফ্রেমওয়ার্ক প্রস্তুত করতে রাজি হয়েছে। এটাকে ‘যথেষ্ট ইতিবাচক’ লক্ষণ বলে মনে করছে ঢাকা।

শহীদুল হক বলেন, ‘যেহেতু দুদেশের যৌথ নদী কমিশন বা জেআরসি বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যেই আলোচনা শুরু করেছে, তাই তিস্তা নিয়েও আশাবাদী হওয়ার যথেষ্ট কারণ আছে।’

তিনি বলেন, ‘যেহেতু যৌথ নদী কমিশন প্রায় ছয় বছর পর বৈঠকে বসেছে, আগামী বছর আবার বসবে। তাই আমরা কিন্তু আশা করতেই পারি। আর তারা সবগুলো কমন রিভার (অভিন্ন নদী) নিয়েই কাজ শুরু করেছে।’